উন্নয়নের এ যুগেও এতটা ভয়ানকভাবে ভাঙা পোল পেরিয়ে স্কুলে আসতে হয় শিশু শিক্ষার্থীদের!

দুটি গ্রামের মধ্যবর্তী খালে রয়েছে এই পোলটি। বাগেরহাট জেলার কচুয়া উপজেলার আলোকদি গ্রাম এবং মোড়েলগঞ্জ উপজেলার সাগরকাঠী গ্রাম দুটিকে সংযুক্ত করেছে এই পোলটি। 

প্রাথমিক বিদ্যালয়টি পড়েছে আলোকদি গ্রামের শেষ প্রান্তে, অর্থাৎ এই খালের নিকটে। কাছে হওয়ায় সাগরকাঠী গ্রাম থেকে এই পোল পেরিয়ে অনেক শিশু শিক্ষার্থী আসে আলোকদি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।

বাগেরহাট

ভয়ঙ্কর ভাঙা পোল পেরিয়ে স্কুলে আসছে শিশু শিক্ষার্থীরা। ছবি: মানিক দাস।

প্রতিদিন শিশুরা এই পোলটি পার হচ্ছে ঝুঁকি নিয়ে! এলাকাবাসী এবং স্কুলের সহকারি শিক্ষক জাহাঙ্গীর হোসেন জানালেন, কয়েক বছর ধরেই পোলটির এমন জরাজীর্ণ দশা। কয়েকবার কয়েক জায়গায় চিঠি চালাচালি করেও মেলেনি কোনো সুফল।

শিশুরা জানালেন, তারা খুব ভয়ে ভয়ে পোলটি পার হয়। অভিভাবকরা বললেন, যেহেতু অনেক শিশু সাঁতার জানে না, তাই খুব বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

You may also like...