ফরহাদ মজহারের অপহরণ প্রসঙ্গে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন তুলেছেন নিঝুম জ্যোতি

নিঝুম জ্যোতি, মীর্জাপুর, টাঙ্গাইল

১। ফরহাদ মজহার কি সেরকম কেউ যার প্যারাসিটামল টাইপের সামান্য প্রয়োজনীয় কোনো ওষুধ কেনার জন্য ভোর পাঁচটায় নিজেই বের হতে হয়? এটা কি বিশ্বাসযোগ্য?

২। বাদ দেন ফরহাদ মজাহারের মত একজন বয়োবৃদ্ধ বিখ্যাত মানুষের কথা, আপনার আমার মত অখ্যাত কোনো লোকও কি ভোর পাঁচটায় ‘অপ্রয়োজনীয়’ এরকম ওষুধ কিনতে বাইরে বের হবে? এত ভোরে তো আমরা বাস কাউন্টারও ত্যাগ করতে চাই না ঢাকা শহরের বাস্তবতা মেনে।

৩। ‘হলে ভালো হয়’ টাইপের কোনো ওষুধ ভোর পাঁচটায় কিনতে বের হবেন এরকম মানুষ আমার বন্ধু তালিকায় কে কে আছেন?

৪। ভোর পাঁচটায় কি এভেইএবল দোকান খোলা থাকে? ঢাকা শহরে এ সময় কয়টা ওষুধের দোকান খোলা থাকে খুব বিজি হাসপাতাল এরিয়া না হলে?

৫। পৃথিবীতে নাস্তিক বলে কিছু নেই, ধর্ম বিশ্বাস না থাকলেও সমর্পণ মানুষের থাকেই। তাই আস্তিক নাস্তিক নিয়ে কোনো কথা নয়।
মানে, ফরহাদ মজহার নাস্তিক বা আস্তিক এ ধরনের কোনো কথা আমি বলতে চাই না। কিন্তু কোনো অবস্থাতেই একজন সুস্থ মানুষ, মানবিক মানুষ, ভালো মানুষ কি সাম্প্রদায়িকতা এবং জঙ্গিবাদের পক্ষ নিতে পারে?


নিঝুম জ্যোতি

You may also like...