স্ত্রীদের যে দশটি জিনিস স্বামীরা ঘৃণা করে

কিরণ-জাকিয়া

মডেল: জাকিয়া সুলতানা মুক্তা-কিরণ শেখর কুণ্ডু


অনেকে ক্ষেত্রে স্বামীরা প্রকাশের ব্যাপারে একটু কৃপণ থাকে। ভালোবাসা প্রকাশে কৃপণতা ভালো নয়, তবে ঘৃণা প্রকাশে কৃপণ হওয়া ভালো। তবে এমন অনেক প্রকার ঘৃণাও রয়েছে যা প্রকাশ করা মানে প্রকারন্তরে ভালোবাসা প্রকাশ করা। ‘ঘৃণা’ খুব শক্ত শব্দ। এমনকি ভালোবাসার চেয়েও শক্তিশালী শব্দ ‘ঘৃণা’। তবে হতে পারে আপনার স্বামী স্ত্রী হিসেবে আপনার এসন কিছু বিষয় ঘৃণা করে যা তার আপনার প্রতি গভীর ভলোবাসাই প্রকাশ করে।

১. আপনি কষ্টে থাকলে আপনার স্বামী তা ঘৃণা করে 

আপনি যখন কষ্টে থাকেন সত্যি আপনার স্বামীও তখন কষ্ট পায়—এমনকি অনেক সময় তা আপনার চেয়ে বেশি, কারণ সে আপনার পাশে থেকে সে তার কষ্ট প্রকাশ করতে পারে না। চুপি চুপি সে আপনার ওপর নজর রাখতে চায়, এটা সে করে যাতে খারাপতর পরিস্থিতিতে আপনাকে সে সহযোগিতা করতে পারে। আপনার উচিৎ হবে সবসময় স্বামীকে পাশে থাকতে সুযোগ দেওয়া।

২. আপনার কান্না সে সহ্য করতে পারে না 

আপনাকে কাঁদতে দেখলে আপনার স্বামী খুব কষ্ট পায়। অনেক সময় আপনার সাথে সেও বাথরুমে গিয়ে ফুঁপয়ে কাঁদে যখন আপনি হয়ত ভাবছেন যে সে নিশ্চিন্তে ঘুমাচ্ছে। আপনি দূরে থাকলেও সে আপনার কষ্ট বুঝতে পারে। তাই একসাথে কাঁদুন, কারণ, আপনি এখন আর একা নন।

৩. আপনি দূরে থাকাটা সে ঘৃণা করে 

আপনার স্বামী অস্থির হয়ে থাকে যখন আপনি দূরে থাকেন। কারণে অকারণে সে বন্ধুদের সাথে বা পরিচিত মহলে আপনার কথা টেনে আনে। সবসময় সে আপনাকে সাথে রাখতে চায়। সে আপনাকে বিয়ে করেছে, কারণ, সে সবসময় আপনাকে পাশে রাখতে চায়।

৪. আপনি নিজের ওপর আস্থা না রাখলে আপনার স্বামী তা ঘৃণা করে 

আপনার স্বামী আপনাকে নিঁখুত মনে করে; সে আপনার সম্ভাবনাগুলো কাজে লাগাতে চায়। আপনার স্বামী সবসময় আপনার শক্তিশালী দিকগুলো তুলে ধরতে চায়। সে আপনার দুর্বলতাগুলো ঢেকে দিতে পছন্দ করে।

৫. কেউ আপনাকে অবমূল্যায়ন করলে আপনার স্বামী তা ঘৃণা করে

স্বামীরা আগলে রাখতে পছন্দ করে। আপনার কাছ থেকে অন্যায্যভাবে কেউ সুবিধা নিতে চাইলে, আপনার সাথে কেউ ভুল আচরণ করলে আপনার স্বামী তা সহ্য করতে পারে না। মাঝে মাঝে এটা তার কাছে অনেক বেশি অসহনীয় হয়ে উঠতে পারে। এটা সে করে, কারণ, সে আপনাকে ভলোবাসে।

৬. এটা আপনার স্বামী পছন্দ করে না যখন তার জন্য আপনি নিজেকে বদলান

মানুষের কোনো মডেল হয় না, তাই আদর্শ স্বামী বা আদর্শ স্ত্রী বলে কিছু নেই। যদিও কিছু সমাজ ব্যবস্থা অনেক সময় আদর্শ স্ত্রীর সন্ধান দিতে চায়। যে যেমন তাকে সেভাবে পছন্দ করতে পারাটাই আসল কথা। স্বামীরা সেটি করতেই পছন্দ করে। উল্টোটা করতে ঘৃণা করে।

৭. আপনার স্বামী আপনাকে ব্যর্থ দেখতে ঘৃণা করে

আপনার স্বামী আপনাকে সফল দেখতে চায়। এটা সে মেনে নিতে পারেন না যখন দেখে যে আপনি কোনো কারণে ব্যর্থ হচ্ছেন। আপনার স্বামী জানে যে কতটা পরিশ্রম আপনি করে থাকেন।

৮. আপনি রূপ-যৌবন নিয়ে হতাশ হলে সেটি আপনার স্বামী ঘৃণা করে

পুরো জীবদ্দশায় নারীদেহ কী পরিমাণ জটিলতার মধ্য দিয়ে যায় সেটি অনেক মানুষ ধারণাও করতে পারবে না। স্বামীরা সেটি বুঝতে পারে এবং তারা চায় স্ত্রীরা সেসকল পরিবর্তন মেনে নিক, এবং যেন এইভাবে দুশ্চিন্তা না করে যে স্বামী তাকে আর পছন্দ করবে না।

৯. আপনি দুঃখ দিতে সে ঘৃণা করে

আপনার মনে হতে পারে তাহলে কেন সে মাঝেই মাঝেই দুঃখ দেয়। আসলে সে আপনাকে দুঃখ দিতে চায় না। সে বলেছে একভাবে সেটির অর্থ দাঁড়িয়ে গেছে অন্যভাবে। অবশ্যই সে এটার জন্য পরে দুঃখ প্রকাশ করে।

১০. আপনি সুখে না থাকলে আপনার স্বামী সেটি মানতে পারে না

আপনি সুখী না থাকলে আপনার স্বামীও অসুখী হয়। সে আপনাকে এতটাই ভালোবাসে যে আপনি কেমন আছেন তার উপরই নির্ভর করে তার সকল ধরনের আনন্দ বিনোদনের উপলক্ষ্যগুলো।


mesmerizingwords অবলম্বনে

You may also like...