গরমে পোশাক নির্বাচনে যে বিষয়গুলো মাথায় রাখবেন …

গরমে আরামমাঝে মাঝে বরষা এসে গরম কমিয়ে দিলেও গরম পড়ছে বেশ। শীতের আমেজ কাটতে না কাটতেই ফাল্গুনের খরতাপ শুরু হয়ে চলে এসেছে গ্রীস্মকাল। এই গরমে আরাম পাওয়ার জন্য পোশাক নির্বাচন সতর্ক থাকাখুবজরুরী। কেননা পোশাকের সাথে গরমে আপনি বাইরে বের হয়ে স্বস্তি পাবেন কিনা সেটি জড়িত। আগে আরাম, তারপর ভাবুন ফ্যাশন বা স্টাইল কী হবে। তাহলে জেনে নেওয়া যাক গরমে আরামের পোশাক-পরিচ্ছদ সম্পর্কে।

গরমে পোশাকের রং যেমন হবে:

গরমে সাদা রংয়ের পোশাক নির্বাচন করাই সবচেয়ে ভালো। যে রংয়ের পোশাকই হোক রংটা হতে হবে খুব হালকা, কারণ গাড় রং, বিশেষ করে কালো এবং উজ্জ্বল রংএর যে কোনো কাপড় তাপ শোষণ করে বেশি, এজন্য সাদা বা অন্য যে কোনো হালকা রংএর কাপড় গরমে ব্যবহার করা বিজ্ঞানসম্মত। 

আরামদায়ক পোশাক:

গরমে সুতি কাপড়ের কোনো বিকল্প নেই। তাও খুব ভারী হলে চলবে না, হালকা সুতী কাপড়ের পোশাক গরমে আরাম দেবে। গরমের মৌসুমে সুতির পাশাপাশি বয়েল এবং লিলেন কাপড়ের তৈরি পোশাক পরার পরামর্শ দেন বস্ত্র বিশেষজ্ঞরা।

গরমে যেহেতু শরীর ঘামে বেশি এবং সুতি কাপড়ের পানি শোষণ ক্ষমতা বেশি, তাই এটি গরমে ব্যবহারের জন্য বিশেষ উপযোগী। তাছাড়া সুতি কাপড়ে তৈরি পোশাক আরামদায়ক এবং দীর্ঘস্থায়ী। পাশাপাশি এ ধরনের পোশাকের যত্ন নেওয়া তুলনামূলক সহজ।

গরমে সঠিক অন্তর্বাস:

প্রচণ্ড গরমের হাত থেকে রেহাই পেতে লো কাটের ব্রা উপযুক্ত, খেয়াল রাখতে হবে ব্রার ফিতাটা যেন চিকন হয়। ব্রার হুক কিন্তু অস্বস্তির কারণ হতে পারে, তাই সেদিকেও খেয়াল রাখতে হবে। স্ট্র্যাপলেস ও অফ শোল্ডার ব্রা গরমকালের জন্য উপযুক্ত। ব্রা যেহেতু নিচেই থাকবে, ফলে এটি সাদা বা অফহোয়াইট হলে গরমে আরাম পাওয়া যাবে। গরমে কোনোভাবেই মোটা কাপড়ের ব্রা পছন্দ করা যাবে না। এক্ষেত্রে ব্রান্ডের দিকে না ঝুঁকে বুঝেশুনে কেনাই উত্তম। 

ছেলেদের ক্ষেত্রে সাদা, মোলায়েম কাপড়ের শর্টস এবং মেয়েদের ক্ষেত্রে হাই কাট প্যান্টি উপযুক্ত। তবে শর্টস বা প্যান্টির কাপড়টা একটা মোটা হওয়া চাই, যাতে সেটি ঘাম শোষণ করে নিতে পারে। কিছু শর্টস এবং প্যান্টি বাজারে রয়েছে যেগুলো গরমের আবহাওয়া মাথায় রেখেই তৈরি। সে ধরনের শর্টস এবং প্যান্টি গরমের জন্য খুঁজে নেওয়া ভালো।

গরমে শার্টের নিচে একটি স্যান্ডো গেঞ্জি নারী পুরুষ উভয়ের জন্য জরুরী। খেয়াল রাখতে হবে এটি জন্য কোনোভাবেই টাইট না হয়, এবং অবশ্যই গরমে এটি সাদা হওয়া চাই। টাইট পরলে খুব অস্বস্তি লাগবে। শার্টের নিচের গেঞ্জিটা একটু ঢিলেঢালা হওয়া ভালো। গেঞ্জি না পরলে ঘামে জামা ভিজে আপনাকে খুব বিকট লাগতে পারে অন্যের কাছে। 

বিজ্ঞাপন:

You may also like...