আপনার প্রেমিকার যৌনতৃপ্তি যেভাবে আনবেন …

অনেক সময়ই আমরা নারীর যৌন সুখ আমলে নিতে চাই না। কিন্তু একজন পার্টনার হিসেবে এটা আপনার জানা দায়িত্ব যে আপনার সঙ্গী আপনার শারীরিক স্পর্শ পছন্দ করছে কিনা, বা কীভাবে পছন্দ করছে। সঙ্গীর পছন্দ অপছন্দ গুরুত্ব দিতে হবে, নিজের কোনো অনিচ্ছ বা ঘাটতি থাকলে সেসব নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করতে হবে, সঙ্গীর পছন্দকে গুরুত্ব দিয়ে বিছানায় অভ্যস্ত হতে হবে। মনে রাখতে হবে যে নারীরা পার্টনারের প্রতি খুবই সদয় হয়, তা খোলামেলা আলোচনা করলে দেখবেন সবই সমাধান হয়ে গেছে। আমাদের দেশে যেহেতু নারীদের যৌন কাতরতাকে উদারভাবে দেখা হয় না, তাই অনেক নারীই এমনকি স্বামীর কাছেও মুখ খুলতে চায় না, শারীরিক ভাষায়ও সে প্রকাশ করতে চায় না তার যৌন সুখ। এজন্য আগে আপনার সঙ্গীকে অভয় দিতে হবে, আপনি যে উদার দৃষ্টিভঙ্গির লোক সেটি শুধু কথায় নয়, কাজের প্রকাশ করতে হবে। সবচে বড় কথা সঙ্গীকে জোর করবেন না, শারীরিক সম্পর্ক জোর করে হয় না, মতামত নিন, এরপর মিলিত হোন।


সঙ্গীর অর্গাজম যেভাবে আনবেন:

প্রথমেই বলে নেওয়া ভালো যে মেয়েদের মূলত দুধরনের যৌন সুখানুভূতি হয়। প্রথমটা, স্পর্শজনিত সুখ, দ্বিতীয়টা চরম পূলক বা অর্গাজম। এই সুখের মূল উৎস হচ্ছে ক্লাইটোরিস এবং ক্লাইটোরিসের ঠিক নীচে জি-স্পট।

সব নারীর জি-স্পট অবশ্য সমান কার্যকর নয়, তবে ক্লাইটোরিসে স্পর্শজনিত সুখ সকল নারীই উপভোগ করে। সমকামী নারীও, বরং সমকামী নারীদের এই অনুভূতিটা বেশি।

অর্গ্যাজম যে শুধু সঙ্গম করলেই হবে এমনটি নয়, এটি সঙ্গম ছাড়াও হতে পারে। 

সঙ্গীকে সুখ দেওয়ার কয়েকটি উপায়-

১) স্তনে জোরে জোরে টিপ না দিয়ে আলতো করে টিপুন, স্তন বৃন্ত স্পর্শ করুন, স্তন বৃন্তে ঠোঁঠ দিয়ে ছোট ছোট চাপ দিন, ছোট ছোট কামড়, খেয়াল রাখবেন যেন সে ব্যথা না পায়।

২) একবারে যোনির ভেতরে ঢুকে যেতে চাইবেন না, সাগরে নামার আগে সাগরের কিনারে দাঁড়িয়ে থাকুন। ঘোরাফেরা করুন। যোনির উপরে জিহ্বার মতো যে ছোট্ট দুটো পাতা থাকে ও দুটি নিয়ে নাড়াচাড়া করুন, পারলে চকলেটের মতো ব্যবহার করুন।

৩) কথা বলুন, ডার্টি টক খুব উপকারী। ডার্টি টক কিন্তু খুব আর্টিস্টিকও হতে পারে।

৪) একটা গ্যাপ নিন। অল্প কিছুক্ষণ গল্প করুন। দেখবেন আপনার সঙ্গীর চোখে মুখে চাহিদা ফুটে উঠেছে। তার গল্পে মন বসছে না। এভাবে তার ধৈর্যের বাঁধ ভেঙ্গে দিয়ে আবার শুরু করুন।

৫) কোনো কোনো মেয়ে পাওয়ার সেক্স পছন্দ করে, কেউ কেউ আবার সফট সেক্সে আগ্রহী, সেটি বুঝে নিন। পাওয়ার সেক্সে আপনি সমর্থ না হলে আর কী করবেন! বৃথা জোর খাটানোর চেষ্টা করবেন না। 

৬) কোনো কোনো মেয়ে শরীরে ছোট ছোট কামড় পছন্দ করে, জেনে নিন।

৭) পিঠ এবং ঘাড় এড়িয়ে যাবেন না, বরং স্তন এবং যোনীর কাছে যাওয়ার আগে ঘাড় থেকে পিঠ হয়ে নিতম্ব পর্যন্ত চুমু খান।

৮) সঙ্গী ম্যাসেজ পছন্দ করলে যৌন সঙ্গমের আাগে বা পরে কিছুক্ষণ ম্যাসেজ করে দিতে পারেন।

You may also like...