লিচু ও শিশু মৃত্যু: খালি পেটে মিথিলিন সাইক্লোপ্রোপাইল এসিটিক এসিড এবং শিশু মৃত্যু

মানুষের ব্রেন এর জ্বালানী হচ্ছে গ্লূকোজ। গ্লুকোজ ব্রেন এ নাই তো আপনিও নাই। রক্তে গ্লুকোজের অভাবে অচেতন হয়ে মৃত্যু খুবই সাধারন ব্যাপার।

গ্লুকোজ লেভেল, বয়স এবং সময়:
ভরা পেটে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা যেখানে ৮-১১ ml/dl সেখানে খালি পেটে মাত্র ৫-৬ আবার এটা যেখানে বয়স্ক দের মাত্রা বাচ্চাদের রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা আরো কম।

এবার কয়েকটা শব্দ পরিচিতি:
হাইপোগ্লাইসেমিয়া
গ্লূকোজ কমে গেলে তাকে হাইপোগ্লাইসেমিয়া বলি, হাইপো অর্থ কম। ডায়াবেটিকস রোগীদের নিকট খুউব পরিচিত একটি শব্দ। কারন তারা অনেক সময় এটা ফেস করে।

গ্লুকোনিওজেনেসিস
জেনেসিস অর্থ সবাই জানি, তাই না? সৃষ্টি। তার মানে সহজ ভাষায় এর অর্থ দাঁড়ায় গ্লুকোজ সৃষ্টি বা তৈরি।

হাইপোগ্লাইসিন
এমাইনো এসিড জাতীয় প্রোটক্সিক। প্রোটক্সিক মানে নিজে বিষ না কিন্তু পেটের ভিতর ভয়ংকর বিষ আছে। এই হাইপোগ্লাইসিন এর মেটাবোলাইট হচ্ছে আজকের শিরোনাম মিথিলিন সাইক্লোপ্রোপাইল এসিটিক এসিড (MCPA)। যা অত্যন্ত বিষাক্ত।

এই হাইপোগ্লাইসিন এর MCPA এর কাজ হলো শরীরে গ্লুকোজ এর মাত্রা কমিয়ে দেয়া বা হাইপোগ্লাইসেমিয়া করা কিভাবে?
সহজ উত্তর গ্লুকোনিওজেনেসিস বন্ধ করে দিয়ে। এর বিষক্রিয়া এতটাই বেশী যে যেখানে রক্তে গ্লুকোজের লেভেল ৩ এর নীচে নামলেই মানুষ অচেতন হয়ে যায় এটি নামাতে পারে শুন্যতেও 😭
উপরে মনোযোগ দিয়ে পড়ে থাকলে কুইজ

কোন সময় হাইপোগ্লাইসিন এর প্রভাব ভয়ংকর হতে পারে?
কেন? জানি তো। খালি পেটে। কারন তখন রক্তে গ্লুকোজ এমনিতেই কম।

কাদের জন্য বেশি ভয়ংকর?
বাচ্চাদের জন্য। কেন? একই উত্তর। বয়স্কদের চেয়ে তাদের গ্লুকোজ লেভেল কম।

সবচেয়ে ভয়ংকরতম প্রভাব……?
বাচ্চাদের উপর যখন খালি পেটে থাকে। মরার উপর খাঁড়ার ঘা।

এতক্ষন বক বক করলাম যে হাইপোগ্লাইসিন বা মিথিলিন সাইক্লোপ্রোপাইল এসিটিক এসিড নামক ভয়ংকর বিষ নিয়ে সেটা কোথায় থাকে?
লিচু তে।
খালি পেটে বাচ্চাদের লিচু খাওয়ালে হাইপোগ্লাইসেমিয়া জনিত দুর্বলতা তো বটেই মৃত্যু ও হতে পারে।
তাই লিচু খাওয়ানোর আগেই বাচ্চা কে ভাত বা শর্করা জাতীয় খাবার দিন।
আর একটা তথ্য হাইপোগ্লাইসিন টক্সিসিটির এন্টিডট নাই।


ডাঃ মোবাশ্বের আহমেদ

You may also like...