ইন্দোনেশিয়ার দুটো বিশ্ববিদ্যালয়ে নিষিদ্ধ হলো মুখঢাকা বোরখা

সৌদি অারবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বেশিরভাগ দেশে মুখঢাকা বোরখা ইসলামি রীতিনীতির অংশ। তবে দক্ষিণ এশিয়ার অনেক দেশে বোরখা ঐতিহ্যের অংশ নয়। তবে চেপে বসা এবং আমাদানীকৃত ধর্মীয় দৃষ্টিভঙ্গির কারণে বোরখা পরিধান করে থাকে অনেকে। তবে এবার বৃহত্তর মুসলিম দেশ ইন্দোনেশিয়ার দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ে নিষিদ্ধ হয়েছে মুখঢাকা বোরখা—বিষয়টিকে দৃষ্টান্ত হিসেবে দেখছে মুক্ত বিশ্বের স্বপ্ন দেখা মানুষেরা।

যদিও এতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন শিক্ষার্থীসহ অভিভাবকরা। সুনান কালিজাগা স্টেট ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করলে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বোরখা পরা ছাত্রীদের বহিষ্কার করা হবে। কর্তৃপক্ষ বলছে মৌলবাদের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়টির অবস্থান পরিষ্কার করতেই সাম্প্রতিক এ নিষেধাজ্ঞা।

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, বোরকা পরা ছাত্রী এবং মৌলবাদী দলগুলো সুস্থ শিক্ষাদানে বাধা সৃষ্টি করছে। এ কারণেই নিয়মিত বোরকা বা নেকাব পরে এমন ৪১জন স্নাতক ছাত্রীকে নিয়ে একটি আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে সকলের সম্মতিতেই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তাঁরা সকলে হিজাব পরতে পারবে কিন্তু নিজেদের মুখ ঢাকতে পারবে না।

You may also like...