‍”প্রিয়তম, আমাকে ভুলিয়ে রেখো না শুধু” কাব্যগ্রন্থ থেকে

প্রিয়তম,
আমি সেদিন শয্যা ছেড়ে,
তোমাকে না জানিয়ে
মানব মুক্তির মিছিলে গিয়েছিলাম।
ফিরে শুনি তুমি শোধ নিয়েছ!
প্রিয়তম,
‘প্রতিশোধ’ তোমার অজুহাত,
যেখানে আমি সত্য, সহজাত।

প্রিয়তম
আমি জানি
অন্ধকারেও কিছু মুক্তি মেলে,
হয়ত সবই মেলে। সেদিন
মুক্তির গানে আমি সুর
মিলিয়ে বলেছি,
তোমার আমার
আলোকিত অন্ধকারও থাক,
মানুষের যা কিছু স্বতন্ত্র
সবই মুক্তি পাক।

প্রিয়তম,
একাকী আমি অনন্যপায়,
পরিব্রাজক হয়ে ঘুরে বেড়াই
হেথায় সেথায় ছলনায়।
অবকাশে সুদূরে আকাশে
বিষন্ন ভাবনায়, দূর অজানায়;
বিযুক্ত পরিবার সমাজ পৃথিবী হতে।
একাকী, ক্লান্ত আমি শুধু তোমার অপেক্ষায়।

প্রিয়তম,
সত্য শুনলে তুমি চমকে যাবে,
তাই তো মিথ্য বলি।

প্রিয়তম,
যদি এমন হত
আমরা দু’জন সবই জানি!
হয়ত জানি, আমি জানি।

‍”না না না” বলে সাগরটা ধেয়ে এসে
আমায় গ্রাস করে বলে,
কেন তুমি কেড়ে নিলে?
সব নিয়েও সে আমায় ঋণী করে!

কাব্যগ্রন্থটি : “প্রিয়তম, আমাকে ভুলিয়ে রেখো না শুধু”

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *