আজ মানবতাবাদী, কণ্ঠশিল্পী ও সংগীতকার নচিকেতা চক্রবর্তীর জন্মদিন

নচিকেতা চক্রবর্তী বাঙালি কণ্ঠশিল্পী ও সংগীতকার। তিনি আধুনিক বাংলা গানের গণমুখী ধারার এক অগ্রগণ্য শিল্পী। এই বেশ ভালো আছি (১৯৯০) অ্যালবাম প্রকাশের পর থেকে নচিকেতা চক্রবর্তী আজ অবদি সমান জনপ্রিয় হয়ে আছেন। নচিকেতা তাঁর গানের মধ্যে মানুষের জীবন ধারণ করেছেন, সেখানে রূঢ় বাস্তবতাগুলো, সেসব অসংগতিগুলো যেগুলোকে বাস্তবা রূপ দিয়েছে মানুষই তা ফুঁটে উঠেছে চমৎকারভাবে।

নচিকেতা চক্রবর্তী একজন সংগীত শিল্পী এবং লেখক। জীবনে বর্ণাড্যতার চেয়ে তিনি গভীরতাকে বেশি প্রাধান্য দিয়েছেন। তিনশো-এর বেশি গান লিখেছেন তিনি। অ্যালবামও বের করেছেন অনেক। ২০০৩ সালে প্রকাশিত হওয়া একটি অ্যালবামের নাম মুখোমুখি (২০০৩)। মুখোমুখি  থেকে একটি গান এখানে দেওয়া হলো।

আমি আমি মুখ্যু-সুখ্যু মানুষ বাবু, কিছুই জানি না।
এই এদেশের রঙ তামাশা কিছুই বুঝি না।
আজকে যিনি দক্ষিণেতে কালকে তিনি বামের,
আজকে যিনি তেরঙ্গা তে কাল ভক্ত রামের।

কে যে কখন কার পেছনে, বুঝিনা কে খাঁটি,
আসলে সবাই সবার পেছনেতে, সবার হাতেই কাঠি!

কথায় কথায় ধর্মঘট আর সবাই ধর্মঘটি,
অধার্মিকের ধর্মজ্ঞানে, স্লোগান আর স্লোগানে-
গোলকধাঁধায় ঘুরে আমার হারিয়ে গেছে ঘটি!

মন্ত্রীরা সব হারামজাদা, আস্ত বদের ধাড়ি,
তুড়ুক নাচে, মন্ত্রিসভা এখন বাঈজী বাড়ি।
আজকে যিনি কয়লা মন্ত্রী কালকে তিনি শিক্ষা,
তাই, কয়লাকালো শিক্ষা নিয়ে মানুষ করে ভিক্ষা।

আর মানুষ শালাও মাথা মোটা, ভোট দিতে যায় নেচে,
দেশের মানুষ তো কোন ছার, মন্ত্রী গুলো কুলাঙ্গার;
ভালো দাম পেলে এরা বাপকেও দেবে বেচে!

নচিকেতা তোমায় শ্রদ্ধা জানাই ক্লোজআপনিউজের পক্ষ থেকে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *