শুধু অংকটি পারলে হবে না হিসেব পারতে হবে দ্রুত

দশমিকের গুণ দ্রুত করতে সবার নিশ্চয়ই খুব সমস্যা হয়, এটা দ্রুত করে দেখাই। অংকের সিস্টেমটা হয়ত আপনি জানেন, কিন্তু হিসেব দ্রুত পারেন না বলে অনেক সময় সময়ে আর কুলায় না। তাই হিসেব দ্রুত করতে পারাটা জরুরী।

যেমন-
ধরুণ- ৩২.১২ Χ ০.৫ = ?

এই গুণফলটি বলতে আমার লাগবে ৩ সেকেন্ড। কীভাবে?

মনে রাখতে হবে, ভগ্নাংশ দিয়ে গুণ করলে গুণফলটি ছোট হয়।
০.৫ বা হাফ দিয়ে কোনোকিছুকে গুণ করলে সেটি অর্ধেক হয়ে যায়। অপশনের অংক হলে অপশনের দিকে তাকিয়ে সাথে সাথেই উত্তর বলে দেওয়া সম্ভব। কোনটি দিগুণ করলে ৩২.১২ হবে সেটি বোঝা অপশনের দিকে একবার তাকানোর ব্যাপার মাত্র।

এবার করে দেখা যাক-
০.৫ দিয়ে গুণ করা মানে ৩২ হয়ে যাবে ১৬ এবং ০.১২ হয়ে যাবে ০.০৬। কীভাবে ০.০৬ হলো? ১২ কে ৫ দিয়ে গুণ করলে ৬০ হয়। ৩ অংক পরে দশমিক। তাই না? এটা বোঝেন নিশ্চয়ই। তাহলে ৬০ এর আগে আরেকটি ০ নিয়ে ৩টি অংক বানাতে হবে না? যেহেতু দশমিকের পরের শূন্যের কোনো দাম নেই তাই উত্তর হয়েছে ০.০৬। এখান এক সাথে করে দেন। তাহলে মোট উত্তর হল ১৬.০৬।

এবার তুলনামূলক কঠিন একটা দেখা যাক–

১.২১ Χ ০.০৪৩ = ?

প্রথমে ১২১ Χ ৪৩ হিসেব করে আনুন। কত হবে?

হিসাব গুণ

এখন যত অংক পরে শুরুতে দশমিক ছিল তত অংক পরে দশমিক বসিয়ে দিলেই হয়ে যাবে। দশমিক ছিল ৫টা অংক পরে। ৫টা অংক বানানোর জন্য একটা শূন্য লাগবে। সেক্ষেত্রে উত্তর হবে- ০.০৫২০৩।
আসলে ঠিক ৫টি অংকের পরে দশমিক ছিল বিষয়টা এরকম নয়। বোঝার সুবিধার জন্য আমরা এভাবে ভাবি। যেটি হয়েছে- আমরা প্রথম সংখ্যাটাকে ১০০ দিয়ে গুণ করে ১২১ পেয়েছিলাম, এবং দ্বিতীয় সংখ্যাটাকে ১০০০ দিয়ে গুণ করে ৪৩ পেয়েছিলাম। যেহেতু দশমিক উঠিয়ে দিয়ে গুণ করেছি, ফলে শেষে এসে ১০০ Χ ১০০০ = ১০০০০০ দিয়ে ভাগ করা হয়েছে। এভাবে ভাবতে অনেক সময় লাগে বলে দশমিকের পরে শুরুতে যতগুলো অংক ছিল উত্তরে এসেও দশমিকের পরে ততগুলো অংক রাখি।

ম্যাথ প্লে-দিব্যেন্দু দ্বীপ

You may also like...

1 Response

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *