যে খাবারগুলো নারীদের জন্য অত্যাবশ্যকীয়

Yogurt দধি

১. দধি

যতটা খাবেন: সপ্তাহে ৩ থেকে ৫ বার।

যেজন্য খাবেন: এটা হজমে সাহায্য করে এবং প্রোবায়োটিক হিসেবে কাজ করে। প্রোবায়োটিক হচ্ছে শরীরের জন্য উপকারী ব্যাকটেরিয়া। বলা হয়ে থাকে, দধি খেলে ব্রেস্ট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে। তাছাড়া এটি নারীদের আইবিএস কমায়। এটি নাকি যোনীতে ক্ষত সৃষ্টি হওয়াও রোধ করে।

ওমেগা থ্রি ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার

২. ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার

যতটা খাবেন: সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার পরিমাণ মত।

যেজন্য খাবেন: এটি হয়ত অনেকের জানা যে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড সমৃদ্ধ খাবার হার্টের জন্য ভালো। এটি উচ্চ রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণ করে। সাম্রুদ্রিক মাছে যথেষ্ট পরিমাণ ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড রয়েছে।

শীমের বিচি

৩. শীমের বিচি

যতটা খাবেন: সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার পরিমাণ মত।

যেজন্য খাবেন: শীমের বিচিতে প্রচুর প্রোটিন আছে, অাঁশ আছে, এবং ফ্যাটের পরিমাণ খুব কম। শীমের বিচিও ব্রেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধক বলে জানা গিয়েছে। এটি নারীদের হরমোন নিয়ন্ত্রণ করে বলে জানা যায়।

red fruit for woman

৪. লাল ফল (যেমন, টমেটো, লাল আঙ্গুর, তরমুজ ইত্যাদি)

যতটা খাবেন: সপ্তাহে ৩ থেকে ৫ বার।

যেজন্য খাবেন: এ ধরনের ফলে প্রচুর লাইকোপেন থাকে। অন্যান্য উপকারিতার পাশাপাশি এটি নারীদের প্রোস্টেট ক্যান্সার প্রতিহত করে বলে জানা যায়। এ ধরনের ফল ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায় বলেও জানা গিয়েছে।

vitamin d food৫. কমলার রস এবং অন্যান্য ভিটামিন ডি সমৃদ্ধ খাবার:

যতটা খাবেন: প্রতিদিন কিছু পরিমাণ।

যেজন্য খাবেন: ব্রেস্ট, ক্লোন এবং ওভারিয়ান ক্যন্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। কমলার রস এবং লোফ্যাট দুধে ভিটামিন ডি থাকে, পাশাপাশি প্রচুর ক্যালসিয়াম যা নারীদের বিশেষভাবে দরকার।

berries fruit

৬. জাম এবং জাম জাতীয় ফল

যতটা খাবেন: প্রতি সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ বার।

যেজন্য খাবেন: এ ফলগুলো প্রচুর ভিটামিন সি এবং ফলিক এসিড থাকে, যা বাচ্চা ধারণ করার সময় নারীদের বেশি দরকার হয়। পাশাপাশি এটি প্রস্রাবের জ্বালাপোড়া রোধ করে। খাবারগুলো প্রোটেস্ট ক্যান্সার প্রতিরোধীও।


সূত্র: অনলাইন, ডেস্ক সম্পাদনা

You may also like...