“ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি এক হাজার শিক্ষকের মধ্যে তিনশো শিক্ষক জামায়াতের”

শনিবার রাজধানীর ধানমণ্ডির ডব্লিউভিএ মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশে মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের ৮০০ দিন’ এর শ্বেতপত্র প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় সভায় ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির বলেন,

“প্রধামন্ত্রী বলেছেন, জামায়াত সন্ত্রাসী দল, কিন্তু তা সত্ত্বেও জামায়াত নিষিদ্ধ করা হচ্ছে না। জামায়াতের সকল স্থাপনা, ব্যবসা রেখে দিয়ে মুখে জামায়াত বিরোধিতায় কী আসবে যাবে? প্রশাসনের রন্ধ্রে রন্ধ্রে জামায়াত-হেফাজত বসে আছে। কিছু কিছু জায়গায়, যেমন, বগুড়ায় আওয়ামী লীগ ই জামায়াতের ঘাটি হিসেবে কাজ করছে। জামায়াত কোথায় নেই, আমাদের তথ্যমন্ত্রী মহোদয় বলেছেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক হাজার শিক্ষকের মধ্যে তিনশো শিক্ষক জামায়াতের’”

তিনি বলেন, “জঙ্গি-সন্ত্রাস, ওয়াহাবীবাদ, মৌদুদীবাদ বিত্তহীন বা বিত্তশালীদের কোনো ব্যাপার নয়। এই সন্ত্রাসের একটা রাজনীতি ও দর্শন আছে। ধর্মের নামে রাজনীতি বন্ধ করতে না পারলে মৌলবাদের রাহুর গ্রাস থেকে বেরোনো যাবে না।”

‘একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি’ এই সভা এবং শ্বেতপত্র প্রকাশ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

শ্বেতপত্রে ২০১৩ সালের ১ লা নভেম্বর থেকে ২০১৬ সালের ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ৮০০ দিনে দেশের বিভিন্নস্থানে জঙ্গি, মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক হামলা ও কর্মকাণ্ড তুলে ধরা হয়েছে।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *